সোমবার, মে ২০, ২০২৪

বোমা বিস্ফোরণে আহত সেই যুবলীগ নেতার মৃত্যু

মোঃ হানিফ বেপারী, জাজিরা (শরীয়তপুর) :

শরীয়তপুরের জাজিরার বিলাসপুর ইউনিয়নে বোমার আঘাতে আহত যুবলীগ নেতা সজিব মুন্সি(২৫) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন।

মঙ্গলবার (২ এপ্রিল) ভোরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান তিনি। 

বিষয়টি নিশ্চিত করে জাজিরা থানার অফিসার ইনচার্জ হাফিজুর রহমান বলেন, “এ ঘটনায় মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। মামলা হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”

নিহত সজিব মুন্সির ভাই সুমন মুন্সি বলেন, আমার ভাইকে ওরা নিষ্ঠুরের মত মেরে ফেলেছে। আমি খুনিদের ফাঁসি চাই।

জাজিরা উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক আতাউর রহমান মুকুল খান বলেন, “সজিব একজন ভালো ছেলে ছিল। ওর হত্যাকাণ্ডের সাথে জড়িতদের দ্রুত শাস্তির দাবী জানাই। সেইসাথে তার পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানাই।”

প্রসঙ্গতঃ গত ২৬ মার্চ সকালে জাজিরা উপজেলার বিলাসপুর ইউনিয়নের মিয়া চান মুন্সী কান্দি গ্রামের দুই চাচাত ভাইয়ের মধ্যে জমি নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হয়। পরে বিলাসপুর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল কুদ্দুস বেপারী ও স্বেচ্ছাসেবক লীগ নেতা জলিল মাদবর গ্রুপের মধ্যে ঐ দিন বিকেলে মারামারির ঘটনা ঘটে। সেদিন রাতে ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে লুটপাট করা হয়। এতে একজনের হাত ভেঙে যাওয়াসহ উভয় পক্ষের বেশ কয়েকজন আহত হয়। খবর পেয়ে এলাকার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য পুলিশের কয়েকটি টিম টহলরত থাকলেও বুধবার সন্ধ্যা থেকে আবার ককটেল বিস্ফোরণ ঘটানো হয়। 

এসময় ককটেলের আঘাতে জলিল মাদবর গ্রুপের সমর্থক বিলাশপুর ইউনিয়ন যুবলীগ নেতা সজিব মুন্সী গুরুতর আহত হলে স্থানীয়রা তাকে জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সজিব মুন্সীর পেটের নাড়ি-ভুঁড়ি বের হয়ে যাওয়ায় উন্নত চিকিৎসার জন্য চিকিৎসক তাকে ঢাকায় পাঠায়। ৮ দিন চিকিৎসাধীন থাকার পর মঙ্গলবার ভোর পৌনে ৫টায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তিনি মারা যান।

- Advertisement -spot_img
- Advertisement -spot_img
আরও
- Advertisement -spot_img